আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি বরাহেও আছেন, বিষ্ঠাতেও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি বোরখাতেও আছেন, বিকিনিতেও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি জলাশয়েও আছেন, মলাশয়েও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি উটমূত্রেও আছেন, কামসূত্রেও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি আরশেও আছেন, ঢেঁড়শেও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি হাশরেও আছেন, বাসরেও আছেন

বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭

ইমানুলের ধর্মকথা-১৪

পাঠিয়েছেন ইমানুল হক

১৬.
গিরামে ইন্দুগের লাই বাস করাই কষ্ট অই যাইচ্চে। আইজ মগরিবের লমাজের কালে দাড়াইচি জায়লমাজে। সূরা ফইত্তে ফইত্তেই হডাৎ কানের মদ্দি বাজি উটলো ডং ডং করি শব্দ। ওরে মাবুত, সূরাডাই গেলাম বুলে। কুন চুদিরফুতে যানি গন্টা বাজাইচ্চে। বুইজলাম যে ইডা আমাগের ফাশের ফুর্বমুরার ইন্দু বাড়ির তেকেই আইস্তেচে। মেজাজডা গেল চড়ি। লমাজ বাদ দি থুই তাত্তারি উডলাম, "হালার মালোয়ানের ফুতেরে আইজ কাইছি। হালার ফু হালা। ইচলামিক কানটিতে তাকস, আবার ফূজা-মূজা কিরে? অয় মুচলমান অবি নয় জিজিয়া কর দি তাইকবি।" (তোমরা যুদ্ধ কর আহলে-কিতাবের ঐ লোকদের সাথে, যারা আল্লাহ ও রোজ হাশরে ঈমান রাখে না, আল্লাহ ও তাঁর রসূল যা হারাম করে দিয়েছেন তা হারাম করে না এবং গ্রহণ করে না সত্য ধর্ম, যতক্ষণ না করজোড়ে তারা জিযিয়া প্রদান করে। সূরা: আত তাওবাহ: ২৯) বাসাততে বের অইতেই দেহা অইলো তারিকুল হুজুরের সাত। বইল্যাম "হুজুর চলেন মালুগের আজ দইরমু। হালারফুতেগো জ্বালায় নমাজ ফইত্তে পারি না। আল্লা-কুদার সূরা ফত্তে গি বূল অই যায়। বিদর্মিগের অত্যাচার আর কদ্দিন সইজ্জ্য করমু? হালারফুতেগের ফূজা আইজ ছুটামু চলেন।" হুজুর কইলেন, "যুদি বাঞ্চুতগের তারাইবার ফারি তালি কিন্তু গনিমতের মালের বাগ আমাক বেশি দিতে অবি।" (আল্লাহ তোমাদেরকে বিপুল পরিমাণ যুদ্ধলব্ধ সম্পদের ওয়াদা দিয়েছেন, যা তোমরা লাভ করবে। তিনি তা তোমাদের জন্যে ত্বরান্বিত করবেন। তিনি তোমাদের থেকে শত্রুদের স্তব্দ করে দিয়েছেন-যাতে এটা মুমিনদের জন্যে এক নিদর্শন হয় এবং তোমাদেরকে সরল পথে পরিচালিত করেন। সূরা: আল ফাতহ: ২০)। 

আমি কইলাম, আল্লা-রাচূলের বাগ ত ফাবেনই যেতু মজ্জিদে যাবো বাগডা, আরেক বাগ আফনার নিজের নামেও ফাইবেন এন্সাল্লা। এই বলে, হের লগের আরো চাইর ফাচজন চেলাফেলা সহ নি চইল্যাম হরিফদের বাসায়। যেয়ে দেকি  হরিফদের দুদসাদা বউডা মুত্তির সামনে পল-মূল, ফুল, মিষ্টি সামনে নি উলু দিচ্চে। হলুদের মইদ্দে লাল ফাইড় দেয়া শাড়িত বালা লাইগচে কুব। ফেডের নিচে শাড়ি ফড়ায় নাবি ডাও দিকা যাইচ্চে, সুউচ্চ বুকের কারুনে মুনে অইচ্চে জান্নাতি হুরের লাহান। এত সুন্দর লাইগচে বলি বুজাতে ফাইরবো না। যাওক শেষে জোরে হাক দি বইল্যাম, "হরিফদ আচোস নি বাড়িত?" বউডা বয়ে উলু বাজানি বন্দ করি তাকাই রইচে আমগের দিক। চিন্তা কইল্যাম মালডারে যুদি গনিমত ইসেবে ফাওয়া যায়, কারাপ অবি না। ইন্দু মাল কাইতে অন্যরহম মজা। হরিফদ বাইর অইচে আর আমিও কলারকানা না দরি কইলাম, "কিরে ব্যাটা, লমাজের সুময়ে গন্টা বাজাইচস ক্যা? কই লাগাইলাম কতডি গুসি। লগের সগলও মারা ইসটার্ট করি দিসে। হরিফদের বউ দেকি তারিকুল হুজুরের ফা জরাই দইচ্চে। হুজুর আন্নে আমার সোয়ামিরে বাছান।" তরিকুল হুজুর ত সুযুক বুজে ফা চাড়াই ফরম আদরে বুকে টেনে নিয়ে তার বউরে কইচ্চে, "দেহো মা, ইচলামিক কানটিতে তাকার জইন্য তিনডা শত্য আচে। ১. ইচলাম গ্রহন করা, ২. জিজিয়া কর ফ্রদান করা, ৩. দেশ ত্যাক করা। তয় তুমারে আমার ফচন্দ অয়েচে, চাইলে আমাক বিয়া করি এই জামেলাত তেকে বাইচবার ফারো।" হরিফদ এতক্কনে কতা বইল্য, "হুজুর, আমার বউয়েক চারি দেন, আমি আপনাগের জিজিয়া কর দিতে রাজি আচি।" এর মইদ্দে দেহি লগের গুলা শুরু করেসে গরের মইদ্দে লুডপাট। যাক, তালিফরে কিছু ত ফাওয়া যাইবো গনিমতের মালের বাগ। শেষে হরিফদেত্তন ২৫০০০/- নগদ জিজিয়া কর নি রওনা দিলাম। সিকান তেকে ফাচ বাগের এক বাগ আল্লা রাচুলের লাই রেকে বাকিডা কইচ্চি ৭ জনের ৭ বাগ। বাগে ফইল্য তালি ২৮৫৭.১৪ ট্যেকা। আর লুডপাট সরি গনিমতে ফাইলাম আরো ১০০০০-১২০০০ ট্যেকার স্বর্ন। মজা কারে কয়। যাওক, এই দি ত শুরু। ফরবর্তি টার্গেট নিসি, হরিফদের সোন্দোর বিবি আর জমিকানার। আল্লা মুমিনগের ফ্রতি সত্যই মেয়েরবান। আল্লা তুমাক অশেষ দইন্যবাদ।

 

২টি মন্তব্য:

  1. "হরিফদের সোন্দোর বিবি আর জমিকানার। আল্লা মুমিনগের ফ্রতি সত্যই মেয়েরবান।" - আ্ল্লা ফাক বার বার।
    "দেহো মা, ইচলামিক কানটিতে তাকার জইন্য তিনডা শত্য আচে। ১. ইচলাম গ্রহন করা, ২. জিজিয়া কর ফ্রদান করা, ৩. দেশ ত্যাক করা। তয় তুমারে আমার ফচন্দ অয়েচে, চাইলে আমাক বিয়া করি ....."
    মারে বিয়া? সত্যইই মুমিনগো ইমান বড়ই সক্ত।
    -TTSG

    উত্তর দিনমুছুন
  2. "আমিন" কুব বালা কাম কইচ্চেন ইমানুল বাই। আমি জমায়াতে সিলাম না বুলে দুক্কিত!

    উত্তর দিনমুছুন