আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি বরাহেও আছেন, বিষ্ঠাতেও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি বোরখাতেও আছেন, বিকিনিতেও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি জলাশয়েও আছেন, মলাশয়েও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি উটমূত্রেও আছেন, কামসূত্রেও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি আরশেও আছেন, ঢেঁড়শেও আছেন # আল্যা সর্বব্যাপী – তিনি হাশরেও আছেন, বাসরেও আছেন

সোমবার, ৩১ জুলাই, ২০১৭

বিশ্বাসের ভাইরাস মগজে পচন ধরায়!

একটি ছবি শেয়ার করেছেন জনৈক মুমিন, যাতে প্রায় বারো হাজার লাইক আর সাড়ে চৌদ্দ হাজার শেয়ার হয়েছে। লোকটি নাকি হজ্জে গিয়ে পাথর চাপা পড়ে মারা গেছে, অথচ দেহ পঁচেনি। আপনার একটু লক্ষ করেন- লিংক



লোকটির বাম হাতের দিকে তাকান। পায়ের দিকে তাকান। পুরো শুটকি হয়ে গেছে। ছবিটা কতটা নির্ভরযোগ্য সে দিকে যাচ্ছি না। আমরা দেখতে চাচ্ছি মুমিন হলে যুক্তিবোধ কোথায় গিয়ে ঠেকে।  লোকটি হজে গিয়ে পাথর চাপা পড়ে মারা যাচ্ছে, পরে শুকিয়ে শুটকি হয়ে যাচ্ছে - যে ছবি দেখলে বরং হজপ্রথা সম্পর্কে মনে চিন্তা আসা উচিত সেখানে মুমিনরা এর মধ্যেই মিরাকল খুঁজে বের করেছে! হায়, এরা কি মানুষ হবেনা বলেই পণ করেছে?

লোকটি পাথর চাপা পড়ে মারা গেল আল্লা বাচাতে পারল না।  তার দেহ মরুভূমির গরমে শুটকি করে সংরক্ষণে কোন কুদরতি প্রকাশ পায়? আল্লা পাকের ফাজলামির কি সীমা নেই?


1 টি মন্তব্য:

  1. হজ্জ শেষ হয়েছে অন্তত ১০/১১ মাস আগে (নতুন হজ্জ আসন্ন)। তো ৩ মাস আগের ছবি হয় কিভাবে? আর লক্ষণীয় আল্লাহর মেহমান মৃত হাজি সাবের হাতে পচন ধরলেও,আল্লাহর মেহেরবানীতে তার গোমরের ব্যাগটিও বাংলাদেশ পতাকার ছবি অম্লান। তাহলে কার গুরুত্ব বেশি এখা্নে?

    উত্তর দিনমুছুন